দূষণজনিত মৃত্যুর তালিকায় ষষ্ঠ বাংলাদেশ, এক বছরে মৃত্যু ২ লাখের বেশি

দূষণজনিত মৃত্যুর তালিকায় বিশ্বের মধ্যে ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। ২০১৭ সালে বাংলাদেশে ২ লাখ ৭ হাজার ৯২২ জনের মৃত্যুতে দূষণের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। এই তালিকায় সবার উপরে রয়েছে ভারত ও চীন। দেশ দুটিতে মৃত্যুর সংখ্যা যথাক্রমে ২৩ লাখ ২৬ হাজার ৭৭১ ও ১৮ লাখ ৬৫ হাজার ৫৬৬ জন। গ্লোবাল অ্যালায়েন্স অন হেলথ অ্যান্ড পল্যুশন (জিএএইচপি) কর্তৃক ডিসেম্বরে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। তালিকায় বাংলাদেশের ওপরে রয়েছে নাইজেরিয়া (তৃতীয়), ইন্দোনেশিয়া (চতুর্থ) ও পাকিস্তান (পঞ্চম)।

জিএএইচপি’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুষণ হলো ভয়াবহ ও খুব আলোচিত স্বাস্থ্য সমস্যা। বিশ্বে অকাল মৃত্যুর জন্য পরিবেশগত কারণের মধ্যে সবচেয়ে বড় হচ্ছে দূষণ। প্রতি বছর ৮৩ লাখ মানুষের মৃত্যু হয় দূষণজণিত কারণে। যার বিশ্বের মোট মৃত্যুর ১৫ শতাংশ। এই প্রতিবেদনটি ২০১৭ সালের সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুঃখজনক তবে তালিকার শীর্ষে ভারত ও চীনের থাকা অবাক হওয়ার মতো নয়। উভয় দেশেই শতকোটির বেশি জনগণ রয়েছে এবং দ্রুত শিল্পায়ন ঘটছে। পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার মতো বেশি মাত্রায় দূষণে আক্রান্ত দেশগুলো মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বিশ্বের তৃতীয় জনবহুল ও ৩২৫ মিলিয়ন জনসংখ্যার দেশ যুক্তরাষ্ট্রও শীর্ষ তালিকায় রয়েছে। দেশটিতে দূষণজনিত মৃত্যুর সংখ্যা ২ লাখ।

এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব মৃত্যু হয়েছে বিশ্বব্যাপী বিষাক্ত বায়ু, পানি, মাটি ও রাসায়নিক দূষণের কারণে। এই প্রতিবেদন খুবই রক্ষণশীল কারণ বিশ্লেষণে অনেক পরিচিত বিষাক্ত উপাদানকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

দূষণজনিত মৃত্যুর শীর্ষ দেশের তালিকায় উন্নত দুটি দেশ রয়েছে। তালিকার সপ্তম ও অষ্টম দেশ হলো যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া। শীর্ষ দশের মধ্যে আরও রয়েছে ইথিওপিয়া ও ব্রাজিল।

এতে বলা হয়েছে, দূষণজনিত মৃত্যু ধূমপান ব্যবহারে মৃত্যুর চেয়ে ছাড়িয়ে গেছে। ধূমপানে মৃত্যুর সংখ্যা ৮০ লাখ। তবে মাদক, এইচআইভি, ম্যালেরিয়া, টিবি ও যুদ্ধের মৃত্যুর চেয়ে কম।

প্রতিবেদনে দূষণজনিত মৃত্যুর তালিকায় বাংলাদেশ ষষ্ঠ স্থানে থাকলেও বায়ু দূষণজনিত মৃত্যুর ক্ষেত্রে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। ২০১৭ সালে দেশে বায়ু দূষণজনিত মৃত্যুর সংখ্যা ১ লাখ ২২ হাজার ৭৩৪। এই তালিকায় সবার উপরে রয়েছে চীন, দ্বিতীয় স্থানে ভারত। তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে পাকিস্তান ও ইন্দোনেশিয়া।

জিএএইচপির ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক র‍্যাচেল কুপকা বলেন, এই প্রতিবেদন মনে করিয়ে দেয় দূষণ হলো বৈশ্বিক সংকট। আপনি কোথায় বাস করেন তা ব্যাপার না, দূষণ আপনাকে খুঁজে নেবেই।

Comments

comments