ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনা, এক পরিবারের ৪ জন নিহত

ফরিদপুর সদর উপজেলার করিমপুরব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে চারজনই এক পরিবারের সদস্য।

সোমবার সকালের এই দুর্ঘটনায় মোট ছয়জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও এক নারী। তার অবস্থা গুরুতর। তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- বোয়ালমারী উপজেলার ছোলনা গ্রামের ডা. শরীফুল ইসলাম হাদী, তার মেয়ে তাবাসসুম, শ্যালিকা তাকিয়া, বোনের মেয়ে তানজু, তার বন্ধু পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ফারুক হোসেন এবং মাইক্রোবাস চালক নড়াইলের নাহিদ। দুর্ঘটনায় ডা. শরীফুল ইসলামের স্ত্রী রিব্বি গুরুতর আহত হয়েছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাসটি বোয়ালমারী উপজেলা থেকে ঢাকায় যাচ্ছিল। অন্যদিকে ঢাকা-সুনামগঞ্জ রুটে চলাচলকারী মামুন পরিবহনের একটি বাস খুলনা যাচ্ছিল। কানাইপুরের করিমপুর ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে আসার পর যান দুটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাস যাত্রী ছয়জন নিহত হন। আহত হন একজন।

তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘন কুয়াশার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। দুর্ঘটনার পর ওই সড়কে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পাশের পুরাতন ব্রিজ দিয়ে যান চলাচল শুরু হয়।

Comments

comments