জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে তাবিথের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের প্রচার মিছিলে জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় একজন আহত হয়। হামলাকরীরা প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে বলেও অভিযোগ করেছেন তাবিথ আউয়াল। মিরপুর এক নম্বর মাজার রোড এলাকায় প্রচারণা চলাকালে এ হামলা চালানো হয়।

মিরপুর শাহ আলী মাজার এলাকা থেকে আজ তৃতীয় দিনের প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। প্রচারণা চলাকালেই এ হামলা চালানো হয়।

এসময় তা‌বিথ আউয়াল ব‌লেন, প্রতিপ‌ক্ষের লোকজন জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে আমা‌দের প্রচারণায় হামলা করেছে। ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। আমরা প্রচার কাজ চালা‌তে পার‌ছি না। আমরা শা‌ন্তিপূর্ণভা‌বে প্রচারণা চালা‌তে চাই। হামলায় আল আমিন না‌মের এক কর্মী আহত হ‌য়ে‌ছেন।

তিনি বলেন, গতকালও আমার কর্মীদের ওপর হামলা হ‌য়ে‌ছে তা ইসিকে জানা‌বো। প্রচারণাকালে নির্বাচন ক‌মিশনা‌রের ভূ‌মিকার দি‌কে তা‌কি‌য়ে আছি ব‌লে জা‌নি‌য়ে‌ছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।

আজ রোববার ‌সকাল ১০টা ৪৫ মি‌নি‌টে মিরপুর শাহ আলী মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে ৩য় দিনের মতো প্রচারণা শুরু করে তিনি একথা বলেন।

এরপরে তাবিথ আউয়াল উত্তর বিশিল, গুদারাঘাট, চিড়িয়াখানা রোড, ১ নং মিরপুর ঈদগাঁ মাঠ, ডি ব্লক মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট, ১২ নং ওয়াডে দক্ষিণ বিশিল, হাজী বশির উদ্দিন স্কুল রোড, হাবুলের পুকুর পাড়, ১৩ নং ওয়ার্ডে উত্তর পীরের বাগ, ৬০ ফিট, মধ্য পীরের বাগ, মোল্লা পাড়া, মনিপুরি স্কুল রোড, জোনাকি রোড, বড়বাগ হয়ে মিরপুর থানা, ১০ নং ওয়ার্ডে মিরপুর মাজার থেকে ২য় কলোনী, ৩য় কলোনী হয়ে দারুস সালাম ফুরফুরা শরীফে জনসংযোগ করবেন।

গণসংযোগকালে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমরা ইতোমধ্যে নাগরিক সমস্যার ১২টা জায়গা চিহ্নিত করেছি। দায়িত্ব পেলে এই ১২টা জায়গায় আমরা সমন্বয় ও গুরুত্বের ভিত্তিতে একযোগে কাজ শুরু করবো। ডেঙ্গু, পানি, পয়ঃনিষ্কাশন ও যানজটের মতো বাসা ভাড়াও ঢাকার বাসিন্দাদের জন্য একটি বড় সমস্যা। এই লড়াইয়ে জয়ী হতে পারলে ঢাকার নাগরিক সমস্যার সমাধানে কাজ করা সহজ হবে।

তিনি বলেন, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের প্রতিটি স্তর ‘দুর্নীতিতে ভরে গেছে’। মেয়র নির্বাচিত হলে তিনি সবার আগে এই দুর্নীতি দমনে কাজ করতে চান বলে জানান।

তাবিথ বলেন, পুলিশের মামলা হবে, হামলা হবে আওয়ামী লীগের ক্যাডারদের পক্ষ থেকে। আমরা শত বাধা বিপত্তি উপেক্ষা করেও নির্বাচনী মাঠে থাকবো ইনশা আল্লাহ।

Comments

comments