নয়াপল্টনে ফুটপাতে বসে ইশরাকের নেতৃত্ব চলছে স্লোগান

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ব্যাপক ‘কারচুপির’ অভিযোগে ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপির ডাকা হরতাল পালিত হচ্ছে।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ হরতালের ডাক দেন।

হরতালের সমর্থনে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। সেখানে যোগ দিয়েছেন দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির হয়ে নির্বাচনে লড়াই করা ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন।

বিক্ষোভে অংশ নিয়ে নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে স্লোগান ধরেন ধানের শীষ প্রতীকের এই প্রার্থী। তার সঙ্গে মুহুর্মুহু স্লোগান দিতে থাকেন নেতাকর্মীরা। এতে প্রকম্পিত হয়ে উঠে নয়াপল্টন এলাকা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতারা সকাল থেকেই কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে অবস্থান নেন। রিজভীসহ কেন্দ্রীয় নেতারা চেয়ারে বসা। আর অন্য নেতাকর্মীরা তাদের সামনে ফুটপাতে বসা। ইশরাক আসেন বেলা ১১ টার দিকে। তিনি এসেই বিক্ষোভরত নেতাকর্মীদের মাঝে বসে পড়েন।

অনেকে তাকে সম্মান দেখিয়ে পেছনে নেতাদের সঙ্গে চেয়ারে বসতে বললেও তিনি বসেননি। কর্মীদের পাশে ফুটপাতেই বসে পড়েন। এ সময় নিজেই স্লোগানের নেতৃত্ব দেন ইশরাক। তার সঙ্গে শতাধিক নেতাকর্মী ফুটপাতে বসে স্লোগান দিচ্ছেন।

বিএনপি নেতাকর্মীদের ‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’, ‘ভোট চোর ভোট চোর, শেখ হাসিনার ভোট চোর’, ‘আজকের হরতাল, চলছে, চলবে’, ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না, মানবো না’ ইত্যাদি স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে নয়াপল্টন।

Comments

comments