প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, আ.লীগ কর্মী কারাগারে

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় চতুর্থ শ্রেণির বাক্‌প্রতিবন্ধী ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগের এক কর্মীকে গ্রেপ্তারের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বেলা দেড়টার দিকে জকিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আনোয়ার হোসেন সাগর তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ওই ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করেন, গত রোববার মাদ্রাসা থেকে ফেরার পথে তাঁর প্রতিবন্ধী মেয়ে একটি বাড়িতে বরই কুড়াতে যায়। ওই বাড়ির বাসিন্দা কয়েছ আহমেদ (৪২) তাঁর মেয়েকে ধর্ষণ করেন। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে কয়েছকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখেন।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে কয়েছ আহমেদকে অভিযুক্ত করে জকিগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে গতকাল সোমবার বিকেলে অভিযুক্ত কয়েছকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। কোনো পদবি না থাকলেও কয়েছ জকিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের একজন নেতা হিসেবে পরিচিত।

জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. আবদুন নাসের প্রথম আলোকে বলেন, অভিযুক্ত কয়েছ আহমেদকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাঁকে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Comments

comments