টোকিও অলিম্পিকে থাকবে সেই মোবাইল মসজিদ

জাপানের টোকিওতে এ বছরের মাঝামাঝিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অলিম্পিক গেমস। এ উপলক্ষে দেশটিতে জড়ো হবে কয়েক হাজার মুসলিম ক্রীড়াবিদ, কর্মকর্তা ও দর্শকরা। সেখানে নামাজের জন্য সুবিধাজনক স্থান খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হতে পারে। ফলে সেখানকার রাস্তায় রাখা হবে জাপানের তৈরি সেই মোবাইল মসজিদটি। এটি একটি ট্রাকের ওপর নির্মিত।

এ বছরের জুলাই মাসে অলিম্পিক গেমস ২০২০ অনুষ্ঠিত হবে টোকিওতে। এ উপলক্ষে অনেক জায়গায় নামাজের স্থান তৈরি করা হলেও কিছু কিছু জায়গায় নাও থাকতে পারে।

জাপানের রাজধানীতে পাবলিক প্লেস ও হোটেলে নামাজের জায়গার অপ্রতুলতা রয়েছে। ফলে অনেককে নামাজ আদায় করতে ঝামেলা পোহাতে হয়। এমন সমস্যার সমাধান করবে মোবাইল মসজিদটি। এতে রয়েছে ৪৮ স্কয়ার মিটারের প্রার্থনা কক্ষ। এটি একটি চলামান ট্রাকে থাকবে। ওই ট্রাকটি নির্ধারিত জায়গায় পার্ক করার পর কয়েক সেকেন্ডে সয়ংক্রিয়ভাবে তার জায়গা করে নিতে পারে।

এটিতে আরবি হরফে লেখা রয়েছে। এই মোবাইল মসজিদের ভেতরে ওজু করার জায়গা রয়েছে। এ ছাড়া প্রতিবার নামাজের আগে এটি পরিষ্কার করার ব্যবস্থা রয়েছে।

ইয়াসু প্রজেক্ট নামে একটি সংস্থা এর পরিচালনা করছে। জুলাইয়ের ২৪ তারিখ থেকে আগস্টের ৯ তারিখ পর্যন্ত অলিম্পিকের ভেন্যুর কাছাকাছি থাকবে এ মোবাইল মসজিদটি।

সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসুহারু ইনুই আশা করছেন আগত ক্রীড়াবিদ ও সমর্থকরা সবাই এই ট্রাকটি ব্যবহার করবেন।

বুধবার টোকিও টাওয়ারের পাশে দাঁড়ানো সাদা ট্রাককে ইশারা করে ইনো বলেন, আমি চাই ক্রীড়াবিদরা তাদের সর্বোচ্চ অনুপ্রেরণার সঙ্গে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে। এ ছাড়া সমর্থকরা তাদের সর্বোচ্চ অনুপ্রেরণায় উৎসাহিত করবে। সে কারণেই আমি এটি তৈরি করেছি।

ওয়াসেদা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুসারে,২০১৮ সালের শেষ পর্যন্ত জাপানে মোট ১০৫টি মসজিদ ছিল। সূত্র: ইয়েনি শাফাক

Comments

comments