বিএনপিকে মিছিল করতে পুলিশের বাধা, সমাবেশের অনুমতি!

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ মিছিলের পরিবর্তে শর্তসাপেক্ষে সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে দলটি। নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে জড়ো হতে শুরু করলে বিএনপি কার্যালয় এলাকা থেকে কিছুটা দূরে অবস্থান নেয় পুলিশ।

সমাবেশের অনুমতি পাওয়ার পর বিএনপির কার্যালয়ের সামনে থেকে শনিবার বেলা ১টা ৪৫ মিনিটের দিকে পুলিশ সরে যায়।

এদিন বেলা ২টায় নয়াপল্টন থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করার কথা ছিল বিএনপির। সেটি জাতীয় প্রেসক্লাবে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপি কার্যালয়ের মূল ফটক ঘিরে অবস্থান নেন পুলিশ সদস্যরা। এতে ভেতরে আটকা পড়েন বিএনপির কেন্দ্রীয় কয়েকজন নেতাসহ বেশকিছু নেতাকর্মী।


এছাড়া বিএনপি কার্যালয়ের আশপাশের গলিতে গোয়েন্দা পুলিশ-ডিবিসহ বিপুলসংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। প্রস্তুত রাখা হয় প্রিজন ভ্যান, এপিসি, জলকামান।

পরে মিছিলের পরিবর্তে পুলিশ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে শর্তসাপেক্ষে সমাবেশের অনুমতি দিলে মিছিল নিয়ে সেখানে জড়ো হতে শুরু করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। স্লোগানে স্লোগানে নয়াপল্টন এলাকা মুখর করে তোলে তারা।

ধীরে ধীরে নেতাকর্মীদের সংখ্যা বাড়তে থাকলে কিছুটা পিছু সরে গিয়ে অবস্থান নেয় পুলিশ। সমাবেশস্থল থেকে প্রিজন ভ্যান, এপিসি, জলকামান সরিয়ে কিছুটা দূরে নিয়ে রাখা হয়।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গত শনিবার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করে বিএনপি।

ওই সমাবেশ থেকে নতুন করে শনিবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দেওয়া হয়। ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানীতে কেন্দ্রীয়ভাবে এই বিক্ষোভ পালন করার কথা ছিল।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডিত হয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়ায় গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে বিএসএমএমইউ-তে ভর্তি আছেন তিনি।

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী গুরুতর অসুস্থ জানিয়ে একাধিকবার তার জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে যায় তার আইনজীবীরা। তবে বরাবরই আদালত জামিন নামঞ্জুর করেছে।

Comments

comments