স্পেনের বৃদ্ধাশ্রমগুলোতে সারি সারি মরদেহ

ইউরোপের দেশ স্পেনের বৃদ্ধাশ্রমগুলোতে বেশ কয়েকজন বয়স্কদের পরিত্যক্ত ও মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বর্তমানে বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের নতুন কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়েছে ইউরোপ। মহাদেশটির ইতালি,ফ্রান্স ও স্পেনে গত ২৪ ঘন্টায় প্রাণ হারিয়েছেন সহস্রাধিক। এদের মধ্যে গতকাল স্পেনে রেকর্ড সংখ্যক ৪৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ হাজার ৩১১ জনে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশে সেনা মোতায়েন করা হয়। রাজধানী মাদ্রিদে সেনাবাহিনী তাদের পরিদর্শনকালে কিছু বয়স্ক মানুষকে পুরোপুরি পরিত্যক্ত অবস্থায় দেখতে পায়। এমনকি তাদের কেউ কেউ বিছানায় মৃত অবস্থায় পড়ে ছিল বলে জানিয়েছেন স্প্যানিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মার্গারিটা রোবেলস। তিনি বেসরকারি টিভি চ্যানেল টেলিকিনকোকে বলেন, বৃদ্ধাশ্রমে প্রবীণদের সাথে এমন আচরণে ‘কঠোর এবং অনমনীয়’ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে সরকার। স্প্যানিশ কলাকূশলীরা এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছেন।

তবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এটাও জানান, কয়েকজন কর্মী করোনায় আক্রান্ত হওয়াতে বৃদ্ধাশ্রম ত্যাগ করেছিলেন। শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত মরদেহ হিমাগারে রাখা হবে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। কিন্তু যাদের মৃত্যুর কারণ করোনাভাইরাসের সাথে জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তাদের মৃতদেহ এখনো বিছানাতেই রেখে দেয়া হয়েছে। যথাযোগ্য ব্যবস্থা নিয়েই তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হবে।

এদিকে মাদ্রিদে সঙ্কট ক্রমেই বাড়ছে। শহরের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া হোম বলেছে, প্রতিরক্ষামূলক সরঞ্জামের অভাবে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার থেকে কোভিড -১৯ রোগে আক্রান্তদের মরদেহ গ্রহণ থেকে তারা বিরত আছে। শহরে আইস প্যালেস নামে একটি হিমাগার মর্গ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি

Comments

comments