বিয়ের প্রস্তাব দেয়ায় যুবককে পিটিয়ে হত্যা

জামালপুরে বিয়ের প্রস্তাব দেয়ায় এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে মেয়ের পরিবারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।

সন্তানহারা মায়ের আহাজারিতে জামালপুর সদর উপজেলার দুয়ানীপাড়া গ্রামে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার উজ্জল মিয়ার কাছে তার ভাতিজির সঙ্গে বিয়ের প্রস্তাব দেয় অটোরিকশা চালক সোহাগ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সোহাগের বাড়িতে হামলা চালায় চাচা উজ্জল ও তার সমর্থকরা।

এ বিষয়ে জানাতে রাতেই স্থানীয় জনপ্রতিনিধির বাড়ি যান সোহাগের মা। বাড়ি ফিরে এসে গাছের সঙ্গে ছেলের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান তিনি। তার দাবি, ভাতিজিকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়ায় ছেলেকে পিটিয়ে হত্যা করেছে উজ্জল।

তদন্ত করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন নারায়ণপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল লতিফ মিয়া।

বাবা মারা যাওয়ার পর অটোরিকশা চালিয়ে সংসার চালাতো সোহাগ।

Comments

comments