পরিবারের জন্য নিজেই পিপিই বানালেন বুয়েট শিক্ষক

করোনাভাইরাস থেকে নিরাপদে থাকতে নিজের ও পরিবারের জন্য স্বাস্থ্য সরঞ্জাম পারসোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) তৈরি করেছেন বুয়েটের মেকানিক্যাল ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. মাকসুদ হেলালী। পরিবার ও নিজেদের সুরক্ষার জন্য তিনি নিজেই পিপিই তৈরি করেছেন বলে জানান এই বুয়েট শিক্ষক।

রোববার যোগাযোগ করলে বুয়েটের শিক্ষক মাকসুদ হেলালী জাগো নিউজকে বলেন, পুরো পৃথিবীজুড়ে করোনার প্রদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশেও এটি ছড়িয়ে পড়ছে। বুয়েট পরিবারের কয়েকজন এই ভাইরাসের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তারা চিকিৎসারত রয়েছেন।

তিনি বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে দিনরাত ঘরের মধ্যে থাকতে বলা হলেও বিভিন্ন প্রয়োজনে বাইরে যেতে হচ্ছে। এতে করে করোনাভাইরাসের আক্তান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এ কারণে নিরাপদে থাকতে বাজার থেকে কাপড় এনে তিনি নিজের জন্য পরিবারের সদস্যদের জন্য পাঁচটি পিপিই তৈরি করেছেন। জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে গেলে পিপিই পড়ে তারা বাইরে যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

বুয়েটের আবাসিক এলাকায় বসবাসকারী ড. মাকসুদ হেলালী আরও বলেন, নিজেদের চাহিদা পূরণ হলে প্রয়োজনে প্রতিবেশীদেরও বানিয়ে দেব।

এদিকে বুয়েটের প্রবীণ শিক্ষক মাকসুদ হেলালীর নিজ হাতে পিপিই তৈরি ছবি বুয়েট শিক্ষার্থীদের বুয়েটিয়ান নামে একটি গ্রুপে দেয়ার পর তা ভাইরাল হয়ে গেছে। এতে বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা শেয়ার ও কমেন্ট করছেন। অনেকে এই শিক্ষককে স্যালুট জানিয়েছেন। নিজ হাতে পিপিই বানানোর কারণে অনেকে নানাভাবে প্রশংসা করেছেন।

লুৎফুনাহার শম্পা নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, ‌‘উইশ ম্যান, উইশ থটস, মে আল্লাহ ব্লেস হিম সাউন্ড হেল্থ।’

আসিফ নামে একজন লিখেছেন, ‘দেখেই ভালো লাগল, এই সব মানুষ সাদা মনের-খুব সহজ সরল হয়।’

রিজন আবু সাহাদাত লিখেছেন, কোনো ধরনের ক্যামেরা লাইট অ্যাকশান ছাড়াও যারা অবদান রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছেন, তাদের জন্য শুভেচ্ছা…সুস্থ থাকুন, অন্যদের অনুপ্রাণিত করুন আপন কাজের দ্বারা।

ইব্রাহিম খলিল লিখেছেন, ‘স্যারের জন্য আন্তরিক দোয়া ও ভালোবাসা।’

সুবর্ণ দাস গুপ্তা লিখেছেন, ‘দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে আপনার মতো মানুষ আছে বলেই দেশটা এখনো ভালো আছে।’

Comments

comments