সোহরাওয়ার্দীর আইসোলেশনে থাকা দুজনের মৃত্যু

জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন দুই রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) রাতে একজন ও আরেকজনের বুধবার (১ এপ্রিল) রাতে মৃত্যু হয়। তাদের বয়স ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে। সামাজিক নিরাপত্তার স্বার্থে মৃত দুজনের পরিচয় জানায়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদের মধ্যে গত মঙ্গলবার মারা যাওয়া একজন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না বলে নমুনা পরীক্ষার পর জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক প্রফেসর ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া জানান, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে জ্বর ও সর্দি-কাশি নিয়ে ভর্তি দুই রোগী গত দুদিনে মারা গেছেন। আজ প্রথমজনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। তার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

তিনি আরও বলেন, আরেকজনের নমুনা পাঠানো হয়েছে। আজ রাতে রিপোর্ট পেলে জানা যাবে তিনি করোনায় সংক্রমিত ছিলেন কি-না।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, পরপর দুজনের মৃত্যুর পর রিপোর্ট না দিয়ে চিকিৎসকরা লাশ নিয়ে যেতে বললে জটিলতা তৈরি হয়। স্বজনরা নিশ্চিত নন যে মৃতরা করোনায় আক্রান্ত কি-না। একদিন অপেক্ষার পর তারা হট্টগোল শুরু করেন। পরে একজনের নেগেটিভ বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, সমাজসেবা অধিদফতরের তত্ত্বাবধানে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামের সহায়তায় স্বজনদের কাছে দুটি মরদেহ হস্তান্তর করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Comments

comments