করোনায় ইতালিফেরত নৌবাহিনী সদস্যের মৃত্যু, শ্বশুরবাড়ি লকডাউন

নৌবাহিনীর ইতালি মিশন থেকে ফেরা নাজমুল হক (৩৫) নামে এক সদস্য জ্বর, কাশি, গলাব্যথা ও শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতেই মেহেরপুর সদর থানা পুলিশ নিহতের শ্বশুরালয় লকডাউন করে লাল পতাকা টাঙিয়ে দিয়েছে।

মেহেরপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অলক কুমার দাসের নেতৃত্বে আজ শুক্রবার স্বাস্থ্য বিভাগের একটি দল এলাকা পরিদর্শনে যাবেন।

তিনি জানান, নিহতের মৃত্যুর বর্ণনায় করোনার উপসর্গ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, নিহত সাইফুল নৌবাহিনীর সদস্য। বৈবাহিক সূত্রে তিনি মেহেরপুরের কোলা গ্রামের খোকন শেখের বাড়িতে ছিলেন।

নৌবাহিনীর ইতালি মিশন শেষে কিছুদিন আগে তিনি শ্বশুরবাড়িতে ফিরলে অসুস্থ হয়ে পড়েন। জ্বর, কাশি, গলাব্যথা, শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি ১০-১২ দিন স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নেন। মৌসুমী জ্বর, কাশি ভেবে এ সময় অনেকের সাথে মেলামেশাও করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক রোগীকে বাড়ি নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দেন। সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার ফরিদপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

ডা. অলোক কুমার জানান, রোগীর মৃত্যু বর্ণনায় করোনার উপসর্গ আছে। কিন্তু তথ্য গোপন করে রোগীর চিকিৎসা হওয়ায় স্বাস্থ্য বিভাগ জানতে পারেনি। এতে কমিউনিটি ঝুঁকি থাকতে পারে। তাই আজ একটি চিকিৎসক দল পুরো এলাকা ঘুরে রোগীর সঙ্গে মেলামেলা সকল ব্যক্তিকে চিকিৎসার আওতায় আনার ব্যবস্থা নেবে।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ দারা খাঁন জানান, ঘটনা জানা মাত্রই পুলিশ মৃত ব্যক্তির শ্বশুরালয় লকডাউন করে রেখেছে।

Comments

comments