আল্লামা সাঈদীর মুক্তি চাইলেন বিশিষ্ট শ্রমিক নেতৃবৃন্দ

বয়স, মানবিক ও ধর্মীয় বিবেচনায় আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি জানিয়েছে দেশের শীর্ষ শ্রমিক নেতারা। এক যৌথ বিবৃতির মাধ্যমে বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান তারা।

গতকাল বাংলাদেশ রিক্সা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ, লোকাল গার্মেন্টস শ্রমিক ইউনিয়ন, ঢাকা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নসহ শতাধিক শ্রমিক নেতারা এই বিবৃতি প্রদান করেন।

বিবৃতি নেতৃবৃন্দ বলেন, আল্লামা সাঈদী একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় আলেমেদ্বীন, তার হার্টে ৫টি রিং বসানো এবং ডায়াবেটিসসহ বাধ্যর্ক্যজনিত নানান জটিল রোগে আক্রান্ত ৮১ বছরের বয়োবৃদ্ধ আল্লামা সাঈদী স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে অক্ষম। তাই সরকারকে অনুরোধ করবো মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় আল্লামা সাঈদীকে মুক্তি দিয়ে জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলায় জাতীয় ঐক্যের ভীত রচনা করুন। তাই আমরা রাষ্ট্র প্রধান ও সরকার প্রধানের কাছে আল্লামা সাঈদীর আশু মুক্তি দাবি করছি।

নেতৃবৃন্দ আশা করেন, আমাদের সরকার ও রাষ্ট্র বর্ষীয়ান এ মুফাসসিরের প্রতি সদয় হয়ে তাঁকে মুক্তি দিবেন। বিবৃতিতে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের নাম উল্লেখ করা হয়।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, বাংলাদেশ রিক্সা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হারুনুর রশিদ খান, সাধারণ সম্পাদক লস্কর মোহাম্মদ তসলিম, জাতীয় শ্রমিক কর্মচারী জোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম রাব্বানি জামিল, ন্যাশনাল ওয়াকার্স ফেডারেশনের সভাপতি অলমগীর মজুমদার, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম এ ফায়েজ, বাংলাদেশ স্থল বন্দর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ চাতাল শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম রব্বানী, সাধারণ সম্পাদক অাব্দুল মতিন, বাংলাদেশ কৃষিজীবি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হাসান রাজু, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শফিকুল ইসলাম, জাতীয় শ্রমিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম জাহাঙ্গির হোসেন, টেক্সটাইল শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী সামিমা আক্তার শিরিন, গার্মেন্টস দর্জি শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী মিসেস সাহিদা সরকার, বাংলাদেশ প্রগতিশীল গার্মেন্টস শ্রমিক- কর্মচারী ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী মিসেস কামরুন নাহার,বাংলাদেশ শ্রমিক মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল হালিম, ব্যাংক কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনেরর সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ।

বাংলাদেশ ব্যক্তি মালিকানাধীন ষ্টীল ও রি-রোলিং মিলস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি আবুল হাশেম, সহ-সভাপতি আব্দুস সাত্তার, মোশাররফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, ইসলামী ব্যাংক কর্মচারী কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হোসেন, সহ-সভাপতি আব্দুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবুল আলা মাসুদ, বাংলাদেশ টি, এন্ড, টি শ্রমিক কর্মচারী আদর্শ ফেডারেল ইউনিয়নের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামিম,সহ-সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, আধুনিক প্রেস শ্রমিক- কর্মচারী কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক জি এম মোস্তফা, লতিফ বাওয়ানী পাটকল শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি খলিলুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক মো: ইসমাইল, ডেমরা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, পিপলস গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল খালেক পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান, রিজ ফ্যাশন শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নেরর সভাপতি সাহিদা,সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন।

লোকাল গার্মেন্টস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মীর জুলহাস,সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম,এপ্রিল ফ্যাশন লিমিটেড শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাফর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদিন,স্টেজ টু নিডিং এ্যাপারেলস শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি -মজিবর রহমান, সাধারণ সম্পাদীকা-মোসাম্মাৎ শারমিন, স্মার্ট ফ্যাশন ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড এন্ড কর্মচারী ইউনিয়ন,সভাপতি হায়দার আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম, এ্যাপারেল এক্সপোর্ট লিমিটেড শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ মামুন, সাধারণ সম্পাদীকা সুলতানা ডালিয়া, ফ্যাশন শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নেরর সভানেত্রী আইরিন, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, কেরানীগঞ্জ এ্যাপারেল ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল হক,সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, ঝালকাঠি সদর উপজেলা নৌকা-মাঝি শ্রমিক ইউনিয়নেরর সভাপতি সাইদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন।

সিলেট জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ইয়াসিন আলী খান, সহ-সভাপতি শাহ মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, বয়ড়া বাজার রিকশা ও ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সোবহান বয়াতি, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, তেগুড়িয়া সুরুজ মিয়া রিকশা ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক -মোনহর আলী, বরিশাল সদর সংবাদপত্র হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, সিলেট সদর অটো রাইছ মিল ড্রাইভার শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো: আব্দুল বারী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুক আহমদ, সিলেট মহানগর চারকয়েল শ্রমিক ইউনিয়নেরর সভাপতি মোঃ ইউনুস আলী,সাধারণ সম্পাদক হোসেন আহমদ, সিলেট শহর রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সাত্তার মুন্না, সাধারণ সম্পাদক শাহেদ আহমদ,সিলেট মহানগর দোকান কর্মচারী শ্রমিক ইউনিয়নেরর সভাপতি উবায়দুল হক শাহীন,সাধারণ সম্পাদককামরুল ইসলাম।

ঢাকা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শাহ আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান, চুনারুঘাট থানা কেন্দ্রীয় রিকশা শ্রমিক সমিতির সভাপতি নুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মংলা বন্দর রিকশা শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নেরর সভাপতি মোঃ আবেদ হাসান,সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহির উদ্দিন বাবর গৌজ্জা রিকশা ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়ন, সভাপতি মাহফুজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুক আলী, চাপানী হাট রিকশা ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়ন, সভাপতি আব্দুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শামসুদ্দিন, শিমুলবাড়ি রিকশা ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি মো: আনওয়ারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল রানা, টেঙ্গন মারী রিকশা ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নেরর সভাপতি আব্দুল মজিদ, সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী,  ধর্মপাল রিকশা ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা,নিতপুর আদর্শ রিকশা ও ভ্যান চালক ইউনিয়নেরর সভাপতি বিলাল হোসেন,সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন, চট্রগ্রাম মহানগরী রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নেরর সভাপতি আলমগীর, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইব্রাহীম, রমনা রিকশা ও ভ্যান শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নেরর সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন, সিলেট জেলা রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির সভাপতি জামিল আহমদ,সাধারণ সম্পাদক আইনুল হক প্রমুখ।

এর আগেও বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি তুলে বিবৃতি প্রাদান করেন।

Comments

comments