‘ভোটের স্লিপ ঘরে ঘরে দিতে পারলে অনুদান কেন নয়’

ত্রাণের জন্য নানা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে অসহায় মানুষদের। করোনা মহামারির ভেতরে ঝুঁকি নিয়ে লাইনে দাঁড়াচ্ছেন তারা। কেউ পাচ্ছেন, কেউবা পাচ্ছেন না। আর বিভিন্ন জায়গায় সরকারি চাল আত্মসাৎ করার খবর আসছে গণমাধ্যমে। অথচ এই সাহায্য যদি ঘরে বসে পেতেন দুস্থ মানুষরা তাহলে কতই না ভালো হতো! এ নিয়েই ক্ষোভ ঝারলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেন।

ফেসবুকে রুবেল লিখেছেন, সমালোচনা বাদ দিন। দেশ এখন সংকটময় মুহূর্তে। এই দেশ আপনার আমার সকলের। নিম্ন আয়ের মানুষদের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে হবে।

তিনি জনপ্রতিনিধিদের কাছে প্রশ্ন তুলে লিখেছেন, ভোটের সময় ভোটের স্লিপ যদি ঘরে গিয়ে দিয়ে আসতে পারেন, তাহলে সরকারি অনুদান ঘরে ঘরে গিয়ে কেন নয়?

সংবাদের পাঠকদের জন্য রুবেলের স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলেধরা হলো:

সমালোচনা বাদ দিন

দেশ এখন সংকটময় মুহূর্তে এই দেশ আপনার আমার সকলের।

নিম্ন আয়ের মানুষদের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে হবে।

ভোটের সময় ভোটের স্লিপ যদি ঘরে ঘরে গিয়ে দিয়ে আসতে পারেন? তাহলে সরকারি অনুদান ঘরে ঘরে গিয়ে নয় কেন?

উল্লেখ্য, করোনা মহামারির শুরু থেকেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার রুবেল। এর আগে অসাধু ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে ফেসবুকে এক জ্বালাময়ী স্ট্যাটাসে রুবেল লিখেছিলেন, শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি একাত্তরের সেই বীর সন্তানদের যাদের মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা পেয়েছি এই স্বাধীনতা। অথচ আজ কেন এই বিপর্যয় আমরা সবাই এক নই । কেন? মাস্ক, স্যানিটাইজার এবং মুদি বাজারের সমস্ত জিনিসপত্রের দাম বেড়েই চলেছে ধিক্কার জানাই ওই সমস্ত লোভী মুনাফাখোর ব্যবসায়ীদের যারা কৃত্রিম সংকট তৈরি করে দাম বাড়াচ্ছে তারাই আসলে দেশের করোনা ভাইরাস।

Comments

comments