হাসপাতালের চিকিৎসক, তাই বাসা ছাড়তে বাড়িওয়ালীর তোড়জোড়!

ভাড়াটিয়া মাদারগঞ্জ হাসপাতালের চিকিৎসক। তাই বাড়ির মালিক সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তাকে বাড়ি ছাড়তে হবে! মানবিক কারণে ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া এক করোনা যোদ্ধার সঙ্গে এমনই অমানবিক আচরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে উপজেলার পৌর এলাকার বানিকুঞ্জ এলাকার এক বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে।

মাদারগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত উপ-সরকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ইমরোল হাসান অভিযোগ করেন, তিনি বানিকুঞ্জ এলাকায় কুয়েত প্রবাসী মিন্টুর বাড়িতে ভাড়া থাকেন। কদিন থেকে বাড়ির মালিকের স্ত্রী তাকে কোন কারণ ছাড়া বাড়ি ছেড়ে দিতে হুমকি দিচ্ছে। তিনি আরো জানান, কদিন থেকে তিনি অমানবিক আচরণ করছে।

ইমরোল হাসান জানান, তাদের হাসপাতালে ৪ জন করোনায় শনাক্ত হওয়ায় এবং বাকী ডাক্তার কোয়ারেন্টাইনে থাকায় তিনি এবং তার এক সহকর্মী পুরো হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এমন একটি ভয়াবহ অবস্থায় তাকে বাসা ছেড়ে দেয়ার কথা বলাটা যেমন অমানবিক তেমনি অগ্রহণযোগ্য। তার বাড়ি টাঙ্গাইল জেলায়। তিনি করোনা পরিস্থিতির কারণে বাড়িতেও যায়নি। এমন সময় কি ভাবে বাসা ছেড়ে দিবেন?

এই ব্যাপারে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে জানালে বিষয়টি মাদারগঞ্জ থানাকে অবহিত করা হয়। মাদারগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, বাসার মালিককে এই ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এমন আচরণ করবেন না বলে, বাসার মালিকের স্ত্রী কথা দিয়েছেন।

Comments

comments