কোয়ারেন্টিনে থাকা এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে ঢাকার রাজারবাগে কোয়ারেন্টিনে থাকা ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্য মারা গেছেন।

ট্রাফিক পুলিশের এই কনস্টেবল রোববার রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজারবাগ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে তার মৃত্যু ঘটে।

ঢাকা মহানগর ট্রাফিক পুলিশের দক্ষিণ বিভাগের উপ কমিশনার জয়দেব চৌধুরী জানান, ওই কনস্টেবল অসুস্থ অবস্থায় পরীক্ষা হলে করোনাভাইরাস ‘নেগেটিভ’ এসেছিল। মৃত্যুর পর নমুনা ফের আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। ফলাফল আসার পর সে অনুযায়ী দাফনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই পুলিশ সদস্যের লাশ এখন হিমঘরে রাখা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ জানান, এই কনস্টেবলের শারীরিক বেশ কিছু জটিলতা ছিল।

২০০২ সালে পুলিশে যোগদান করা এই কনস্টেবলের বাড়ী ঝিনাইদহে। তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, এক ছেলে রেখে গেছেন।

জ্বর-কাশি হওয়ায় গত ১৫ এপ্রিল থেকে কোয়ারেন্টিনে ছিলেন এই কনস্টেবল। তখন পরীক্ষায় তার করোনাভাইরাস ‘নেগেটিভ’ এসেছিল।

করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলার কাজে যুক্ত পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য ইতোমধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন।

পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আক্রান্ত ৫২ জন পুলিশ সদস্য রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তাদের মধ্যে একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদ মর্যাদার। তিনি সুস্থ হওয়ার পথে।

আক্রান্ত বাকিদের অধিকাংশই কনস্টেবল। আর এদের বড় অংশ ঢাকা মহানগর পুলিশে কর্মরত।

Comments

comments