ভুয়া ফোনালাপ, তোপের মুখে সময় টিভির ইউটার্ন

সম্প্রতি বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান ও খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাহফুজুল হকের ছবি যুক্ত করে একটি ভুয়া ফোনআলাপ তৈরি করে সময়টিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করে। এরপর তীব্র সমালোচনার মুখে ভিডিওটি সরিয়ে নেয়।

আজ সময় টিভি তাদের লোগো ব্যবহার করে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে দাবি করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে বেসরকারি এই চ্যানেল। সেখানে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন উপেক্ষা করে জানাজায় অসংখ্য মানুষ জড়ো করার ব্যাপারে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হকের নামে ফোনালাপ ফাঁসের ভিডিওতে সময় টিভির লোগো ব্যবহার করে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি মহল।

এ ঘটনায় রাজধানীর কলাবাগান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে বলে খবরে বলা হয়। এছাড়া ভিডিও প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউটিউবে সময় টিভি’র লোগো ব্যবহার করে SOMOY TV নামে (বর্তমানে নামটি পরিবর্তন করে – SOMOY TV Islamic রাখা হয়েছে) একটি চ্যানেল খুলে সেখানে ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে সময় টিভি ইসলামিক (SOMOY TV Islamic) এই নামে কোন চ্যানেল পাওয়া যায়নি।

স্কিনশট দেখুন: সময় টিভির ভেরিফাইড পেজেই ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছিল

সংবাদের অনুসন্ধানে দেখা গেছে, সময় টিভির লোগো ব্যবহার করে নয় বরং সময় টিভির ভেরিফাইড ইউটিউব চ্যানেলেই ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়। সময় টিভি ইউটিউব থেকে ভিডিওটা মুছে দিলেও ওয়েব আর্কাইভে ভিডিওটির লিংক থেকে যায়। আর্কাইভ থেকে দেখা গেছে, ওই ভিডিওটি প্রকাশ করা হয় সেসময় ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার ছিলো ৫.৬৯ মিলিয়ন। পরবর্তীতে প্রতিবেদন লেখার সময় চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার বেড়ে ৫.৭ মিলিয়নে দাঁড়ায়।

এদিকে এই ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। এই জাল সংবাদ যারা পরিবেশন করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আহ্বান জানান তারা।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারি এডভোকেট মতিউর রহমান আকন্দ ২১ এপ্রিল প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, ফোনালাপ ফাঁসের কথা বলে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান এবং মুফতি মাহফুজুল হকের তথাকথিত কথোপকথনের যে কন্ঠ প্রচার করা হয়েছে তা জামায়াতের আমীর ডা: শফিকুর রহমানের কণ্ঠ নয়।

বিভিন্ন অনলাইন চ্যানেলে আমীরে জামায়াত ডা: শফিকুর রহমানের বহু ভিডিও-অডিও বক্তব্য রয়েছে। ঐ সব বক্তব্যের কণ্ঠের সাথে মিলানো হলে যে কেউ বুঝতে সক্ষম হবেন যে, সময় টিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রচারিত কণ্ঠ আমীরে জামায়াত ডা: শফিকুর রহমান-এর নয়।

জামায়াত নেতা বলেন, অন্য লোকের কণ্ঠকে পরিকল্পিতভাবে আমীরে জামায়াত ডা. শফিকুর রহমানের কণ্ঠ বলে প্রচার করে সংশ্লিষ্ট চ্যানেল ও প্রতিবেদক তথ্য আইনের সুস্পষ্ট লংঘন এবং ব্যক্তি ও দলের সম্মান হানি করেছেন। আমরা এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এ জাল সংবাদ তৈরী ও প্রচারের সাথে যারা সংশ্লিষ্ট তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানাচ্ছি।

Comments

comments