মাস্কের ভুল ব্যবহার

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকতে মাস্ক এখন নিত্যদিনের পরিধেয়। কিন্তু অনেকেই এটি ব্যবহার করতে গিয়ে ভুল করেন।

১. শুধু মুখ ঢাকা: নাক বাদ দিয়ে অনেকে শুধু মুখ ঢেকে মাস্ক পরেন। এটি একদমই উচিত নয়। নাক বাদ থাকলে নিজে যেমন আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে, তেমনি অন্যরাও আক্রান্ত হতে পারেন।

বাফেলো বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্রামক রোগের প্রধান টমাস রুসো হাফিংটন পোস্টের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি এভাবে ব্যাখ্যা করেছেন, ‘আমরা প্রায়ই আংশিক অথবা সম্পূর্ণভাবে নাকের মাধ্যমে নিশ্বাস নেই। তাই নাক বাদ দিয়ে মাস্ক পরলে আপনার ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।’

২. হাত দিয়ে মাস্ক ধরা: সারা দিন মাস্ক পরে বাইরে ঘুরে বেড়ানোর পর বাসায় এসে মাস্কের বাইরে দিকে হাত দিয়ে অনেকে খুলে থাকেন। এটি করলেই আপনার সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে গেল। কারণ বাইরের দিকে জীবাণু থাকলে সেটি হাতে পড়লে আপনি অসুস্থ হতে পারেন।

৩. ঢিলেঢালা ব্যবহার: চিকিৎসকেরা যে এন৯৫ মাস্ক ব্যবহার করেন, সেটি সাধারণত মুখের সঙ্গে টাইট অবস্থায় থাকে। কিন্তু সার্জিকাল মাস্ক কিংবা বাড়িতে তৈরি তিন স্তরের মাস্ক ব্যবহারের সময় অনেকে ঢিল রাখেন। কোনো ফাঁকফোকর থাকা মানে সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যাওয়া।

৪. নাকের ডগা পর্যন্ত ঝুলিয়ে রাখা: ঠিক নাকের ডগা পর্যন্ত মাস্ক ব্যবহার করতে অনেককেই দেখা যায়। এভাবে মাস্ক পরলে বাতাস চলাচলের জন্য বেশ ফাঁকা থেকে যায়। নিরাপদ থাকতে নাকের একটু উপর পর্যন্ত উঠিয়ে রাখতে হয়।

৫. দ্বিতীয়বার ব্যবহার: খুব প্রয়োজন হলে এক মাস্ক দুইবার ব্যবহার করতেই পারেন। কিন্তু এ জন্য মাস্কটি ঠিকভাবে ওয়াশ করা দরকার।

ওয়াশের জন্য গরম পানিতে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখা উচিত। দ্বিতীয়বার ব্যবহারের পর খালি চোখে মাস্ক ক্ষতিগ্রস্ত মনে হলে সাবধানে ফেলে দিতে হবে।

Comments

comments