মানসিক ভারসাম্যহীনদের বাংলাদেশে পুশইন করছে বিএসএফ!

ভারতীয় মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিদের গোপনে পুশইন করছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ)। সীমান্তবর্তী এলাকার মানুষ বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অবহিত করেছেন।

বুধবার (২২ এপ্রিল) তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা সীমান্ত এলাকা দিয়ে এমন কয়েকজনকে বাংলাদেশে প্রবেশ করিয়ে দেয় বিএসএফ। এরপর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) বিষয়টি জানতে পারলে তাদের বাধা দেয়। এসময় একজন নদীর মাঝখানে একটি বালির ঢিবির ওপর দাঁড়িয়ে থাকেন।

বিজিবি ও স্থানীয়রা জানায়, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পাঁচ মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে বাংলাদেশে পুশইনের চেষ্টা করা হয়। স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে বিজিবি ওই সীমান্তে গিয়ে পুশইনে বাধা দেয়।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে লকডাউনের তেঁতুলিয়া উপজেলার এরকম অন্তত শতাধিক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির খাবারের ব্যবস্থা করছে টিম-১৯ নামের তরুণদের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সংগঠনটির আহ্বায়ক সাব্বির হোসেন রকি জানান, “বাংলাবান্ধা সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় মানসিক ভারসাম্যহীনরা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করছে। আমরা বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করেছি। তাদের খাবার দিতে গিয়ে দেখা যায় অনেকে ভারতীয় ভাষায় কথা বলে। অনেকের ভাষা বোঝা যায় না। তাতে বোঝা যায় যে এরা ভারত থেকেই এসেছে। এদের কারো মধ্যে করোনাভাইরাস পজিটিভ থাকতে পারে।”

পঞ্চগড় ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আনিসুর রহমান জানান, “বুধবার বাংলাবান্ধা সীমান্ত এলাকায় বেশ কয়েকজন বাক্তি সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে। আমরা তাদের কয়েক জনকে ফিরিয়ে দিয়েছি।”

এছাড়া অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে বিজিবি সবসময় সতর্ক রয়েছে বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি। এর আগেও কয়েকজন মানসিক ভারসম্যহীনদের বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে।

Comments

comments