এই ঝুঁকিতেও নারায়ণগঞ্জে ১২৬ পোশাক কারখানায় কাজ শুরু

করোনা ভাইরাসের সংক্রামণে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত নারায়ণগঞ্জে নতুন করে আরও ২৩টি তৈরি পোশাক কারখানায় সীমিত পরিসরে কাজ শুরু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত জেলায় ১২৬টি কারখানায় পণ্য উৎপাদন শুরু হলো।

মঙ্গলবার সকাল সাতটা থেকে শ্রমিকেরা কাজে যোগদান করেন। কারখানায় ছুটি হয় বিকেল তিনটায় । গত দুই দিনের তুলনায় শ্রমিকদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মতো।

শিবু মার্কেট এলাকার টেক্স এশিয়া গার্মেন্টসের শ্রমিক বিল্লাল হোসেন জানান, কারখানায় প্রবেশের সময় মেশিনে তাপমাত্রা পরীক্ষা করা, হাত ধোয়া, স্প্রে করা, মাস্ক ও গ্লাভস ব্যবহারসহ দূরত্ব নিশ্চিত করা হচ্ছে। তবে গণপরিবহন সংখ্যা কম থাকায় যাতায়াতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। অনেক শ্রমিককে রিকশা-অটোরিকশায় বাড়তি ভাড়া দিয়ে কারখানায় যাওয়া-আসা করতে হচ্ছে।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৪ এর পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) শেখ বশির আহমেদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গতকালের চেয়ে আজ ২৩টি পোশাক কারখানা বেশি খুলেছে। সোমবার ছিল ১০৩টি আজকে হয়েছে ১২৬টি। কারখানার কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের সুরক্ষার ব্যবস্থা নিয়েছেন। শ্রমিকেরা শান্তিপূর্ণভাবে কাজে যোগদান করেছেন। কোথাও কোনো আন্দোলন বা বিক্ষোভের খবর পাওয়া যায়নি।

Comments

comments