টুইটার ট্রেন্ডের শীর্ষে আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি

আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবিতে হাজার হাজার টুইট করা হচ্ছে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থান থেকে। এর সূত্র ধরে টুইটার ট্রেন্ডের শীর্ষে উঠে এসেছে আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি। ১ মে দিবাগত রাত সাড়ে দশটার সময় দেখা যায় বাংলাদেশ ট্রেন্ডে শীর্ষে অবস্থান করছে #FreeSayedee এই হ্যাশট্যাগটি।

জামায়াতের বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায় ২ মে জামায়াত যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত বিশ্ববরেণ্য মুফাসসির আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবিতে অনলাইনে ক্যাম্পেইন করার প্রস্তুতি নিয়েছে। সেই ক্যাম্পেইনকে সার্থক করতে অনলাইন এক্টিভিস্টরা ১ মে রাত দশটা থেকেই টুইটারে টুইট করতে শুরু করে। অল্প সময়ে হাজার হাজার টুইট করায় আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি এখন শীর্ষ ট্রেন্ডে অবস্থান করছে।

আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বাংলাদেশের প্রখ্যাত আলেম ও শীর্ষ মুফাসসির। বিগত দশ বছর তিনি যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে কারাগারে বন্দি। যদিও তিনি এবং তার দল জামায়াত এই অভিযোগ বরাবরের মতোই অস্বীকার করে আসছে। স্কাইপ কেলেঙ্কারি, সাক্ষী সুখরঞ্জন বালি অপহরণ এসব ঘটনা আল্লামা সাঈদীর নির্দোষ প্রমাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

আল্লামা সাঈদীর বর্তমান বয়স আশির অধিক। বৃদ্ধ বয়সে এই শীর্ষ আলেম কারাগার থেকে বিনা শর্তে মুক্তি পাবে এমনটাই আশা করে সাঈদী ভক্তরা। বর্তমান মহামারী সংকটে জাতীয় ঐক্য খুবই দরকার। আল্লামা সাঈদীর মুক্তিই হতে পারে জাতীয় ঐক্যের একটি শক্তিশালী কারণ। প্রবীণ ও শীর্ষ আলেম আল্লামা সাঈদীকে মুক্তি দিয়ে আওয়ামী সরকার বিচক্ষণতার পরিচয় দিবে এমনটাই আশা করেন দেশের সচেতন ও বুদ্ধিজীবী মহল।

Comments

comments