করোনায় আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্টের প্রেস সচিব

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের প্রেস সচিব কেটি মিলার। হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সেবার কাজে নিয়োজিত একজনের শরীরে করোনা ধরা পড়ার পরের দিন এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার আক্রান্তের খবর পাওয়া গেল।

শুক্রবার কেটি মিলারের শরীরে করোনা ধরে পড়ে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি। আগের দিন কভিড-১৯ এ শনাক্ত হন হোয়াইট হাউসে সেবার কাজে নিয়োজিত থাকা এক সামরিক কর্মচারী। তবে তার সংস্পর্শে আসা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের টেস্ট নেগেটিভ আসে বলে জানানো হয়।

মিলারের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরের পর পরই ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্সের বিমান এয়ার ফোর্স-২ থেকে ছয়জন কর্মকর্তাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার ওয়াশিংটন ডিসির লোওয়ায় ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন তিনি।

নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের কয়েকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কেশ কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারি সম্প্রতি মিলারের সংস্পর্শে আসলেও প্রেসিডেন্ট বা ভাইস প্রেসিডেন্ট তার সংস্পর্শে আসেননি।

কেটি মিলারের স্বামী স্টিফেন মিলার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিনিয়র উপদেষ্টা।

কেটি মিলারের করোনায় আক্রান্ত নিয়ে কথা বলেছেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউসে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “কেটি অসাধারণ এক যুবতী। দীর্ঘ সময়ে সে পরীক্ষিত। হঠাৎ করেই তার টেস্ট আজ পজিটিভি আসলো।”

হোয়াইট হাউসে যাতে করোনা ছড়িয়ে না পড়ে সে জন্য সব সর্বোত্তম পূর্ব সতর্কতা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান ট্রাম্প। হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টের প্রতিদিনই করোনা পরীক্ষা করানো হচ্ছে।

শুক্রবার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সংখ্যা ১২ লাখ ৮৩ হাজার ছাড়িয়েছে, আর মৃত্যু ছাঁড়িয়েছে ৭৭ হাজার।

Comments

comments