আশ্রয়কেন্দ্রে ২৪ লাখ মানুষ

ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ এর কারণে ২৩ লাখ ৯০ হাজার ৩০৭ জন মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। এ ছাড়া ৫ লাখ ১৭ হাজার ৪৩২টি গবাদিপশুকে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে।

আজ বুধবার সচিবালয়ে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতি জানাতে আয়োজিত অনলাইন সংবাদ সম্মেলেন এসব তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, লোকসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আশ্রয় কেন্দ্রের সংখ্যা ১২ হাজার ৭৮টি থেকে বাড়িয়ে ১৪ হাজার ৬৩৬টি করা হয়েছে। যারা আশ্রয়কেন্দ্রে এসেছেন তাদের মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হয়েছে। জরুরি ওষুধসহ চিকিৎসক দল প্রস্তুত আছে।সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করলে ১৪ হাজার ৩৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্রে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৬০৭ জন মানুষকে রাখা সম্ভব হতো বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী বলেন “ আমরা আশা করছি আম্পান থেকে রক্ষায় সর্বোচ্চ সফলতা পাব।”

ভাসানচরে ১২০টি শেল্টার সেন্টারের মধ্যে একটিতে কিছু মানুষকে রাখা হয়েছে জানিয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী বলেন, তাঁদের তদারকিতে নৌবাহিনী রয়েছে। তাদের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এর আগে বুধবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন,সেখানে প্রস্তুতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করা হয়েছে।

Comments

comments