করোনার চিকিৎসায় তুরস্কে রে-থেরাপি

কভিড-১৯’র মতো ভাইরাসজনিত রোগের চিকিৎসায় তুরস্কের বিজ্ঞানীরা রে-থেরাপি প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু করেছেন।

তুরস্কের বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, তুর্কিশবিম নামের এই স্বাস্থ্যসেবা প্রযুক্তি তৈরি করেছে আরডি গ্লোবাল ইনভেমড।

আঙ্কারার গাজি ইউনিভার্সিটির কার্ডিওভাসকুলার সার্জন হিকমেট সেলকুক গেডিক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি পাওয়ার পর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হয়েছে।’

তুর্কিশবিম রে ট্রিটমেন্ট পদ্ধতি প্রথম তৈরি করে দেশটির বিখ্যাত কয়েকজন বিজ্ঞানী। তিন বছরের গবেষণা শেষে এটি প্রস্তুত করতে সক্ষম হন তারা। প্রথমে অন্য ভাইরাসজনিত রোগের চিকিৎসা করা উদ্দেশ্য থাকলেও এখন কভিড-১৯’র জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

আনাদোলু বলছে, প্রাণীদেহে এই পদ্ধতি সফল হওয়ায় প্রথমবারের মতো মানবশরীরের ভেতরে ব্যবহার করা হতে পারে।

এই রে-থেরাপি মূলত ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের মতো জীবাণুর ওপর প্রয়োগ করা হয়। এরপর চিকিৎসকেরা ক্ষতিকর পদার্থের বিশ্লেষণ করতে থাকেন।

গত মাসের ৪ তারিখ রে-থেরাপির ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতি দেয় তুরস্ক সরকার। এরপর আন্তর্জাতিকভাবে পদ্ধতিটি যাচাইয়ের আহ্বান জানানো হয়। ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের বিজ্ঞানীরা এটি পরীক্ষা করছেন।

তুরস্কের বিজ্ঞানীদের দাবি, এই চিকিৎসা পদ্ধতিতে ছত্রাক, ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের মতো জীবাণু পুরোপুরি ধ্বংস করা সম্ভব। এর কারণে কোনো কোষ ধ্বংস হবে না কিংবা ডিএনএ ক্ষতিগ্রস্ত হবে না।

Comments

comments