ভারত নেপাল সীমান্তে চলছে গুলি বর্ষণ, ১ ভারতীয় নিহত

আন্তর্জাতিক সীমান্ত নিয়ে কূটনৈতিক বিবাদের মাঝেই নেপাল আর্মির গুলি চালনা ও এক ভারতীয়ের মৃত্যু ঘিরে প্রবল উত্তেজনা। ঘটনাস্থল বিহারের সীতামাঢ়ি জেলা। সূত্রের খবর, গুলিতে জখম আরও এক ভারতীয় যুবককে বন্দি করেছে নেপালি রক্ষীরা।

মৃত ভারতীয়ের দেহ ঘিরে স্থানীয় গ্রামগুলিতে প্রবল ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। ঘটনাস্থল সীতামাঢ়ি জেলার সোনবরসা গ্রাম। এই গ্রাম নেপালের জনকপুর বিভাগের লাগোয়া। শুক্রবার আচমকা গ্রামের দিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় নেপালি পুলিশ ও রক্ষীরা। গুলি লেগে বছর ২৫ এর যুবক বিকেশ কুমারের মৃত্যু হয়।

সোনবরসা গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অন্তত পাঁচ বার গুলি চালিয়েছে নেপালি রক্ষীরা। গুলি চালানোর ঘটনায় সীনান্তের দুই দিকের গ্রামগুলিতে ছড়িয়েছে প্রবল উত্তেজনা। দু দিকের আসা যাওয়া বন্ধ।

বিহারের সোনবরসা গ্রামের বাসিন্দারা প্রবল বিক্ষোভ শুরু করেছেন। তবে নেপালি সশস্ত্র রক্ষীদের অভিযোগ, তাদের অস্ত্র কেড়ে নিতে এসেছিল কয়েকজন। তাই গুলি চালানো হয়। যদিও

সীমান্ত এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সতর্ক এসএসবি়। মৃত বিকেশ কুমারের দেহ ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে সীতামাঢ়ি জেলা প্রশাসন পাটনায় স্বরাষ্ট্র দফতরে রিপোর্ট দিয়েছে। সেই রিপোর্ট বিহার স্বরাষ্ট্র দফতর দিল্লিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে পাঠাবে বলেই খবর।

এর আগে ২০১৭ সালে ভারতীয় রক্ষীদের গুলিতে মৃত্যু হয় এক নেপালি নাগরিকের। সেই ঘটনার পর ভারত-নেপাল সীমাম্তের কিছু এলাকা উত্তপ্ত ছিল।

সেই ঘটনারই যেন তিন বছরের মাথায় পুনরাবৃত্তি হল শুক্রবার। এবার অভিযুক্ত নেপালি সীমান্ত রক্ষীরা। সম্প্রতি উত্তরাখণ্ডের লাগোয়া ভারত-নেপাল সীমান্তের কিছু এলাকা নিয়ে নয়াদিল্লি ও কাঠমাণ্ডুর মধ্যে বিবাদ চলছে। এর মাঝে নেপালের আইনসভায় ওই এলাকাগুলি নিজেদের বলে চিহ্নিত করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে।

Comments

comments