করোনা: টেস্ট কমলেও বেড়েই চলেছে আক্রান্ত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে সবশেষ চব্বিশ ঘণ্টায় ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে ১২ হাজার ৮৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করে সংক্রমণ পাওয়া গেছে ৩ হাজার ৫৭ জনের শরীরে।

দেশে গত মার্চের শুরুর দিকে কভিড-১৯ এর সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার পর মঙ্গলবার পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২ হাজার ৭০৯ জনে।

আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ১০ হাজার ৫১০জন। এর মধ্যে নতুন করে ১ হাজার ৮৪১ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ১৫ হাজার ৩৯৭ জন।

সবশেষ তথ্যানুযায়ী, দেশে নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৩.৭০ শতাংশ, শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৯ শতাংশ এবং সুস্থতার হার ৫৪.৮৩ শতাংশ।

দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে মঙ্গলবার দুপুরে এসব তথ্য তুলে ধরেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

চব্বিশ ঘণ্টায় যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে ৩৪ জন পুরুষ, সাতজন নারী। এর মধ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জন করে, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজন করে এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে রংপুর বিভাগে।

বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, সর্বোচ্চ ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে ৫১-৬০ বছর বয়সীদের মধ্যে, ৬১-৭০ বছরে মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের, সাতজনের বয়স ৭১-৮০, ছয়জনের বয়স ৪১-৫০, দুজনের বয়স ৮১-৯০ এবং একজনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে।

চব্বিশ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ৭১০ জনকে, ছাড় পেয়েছেন ৬৫১ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৬৭১ জন।

এই সময়ে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে ২ হাজার ২২ জনকে, ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৩৭৫ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫৯ হাজার ৭৯ জন।

Comments

comments